IMG-LOGO

মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১লা শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই মহর্‌রম ১৪৪৬ হিজরি

× Education Board Education Board Result Rajshahi Education Board Rajshahi University Ruet Alexa Analytics Best UK VPN Online OCR Time Converter VPN Book What Is My Ip Whois
নিউজ স্ক্রল
আফগানিস্তানে ভারী বৃষ্টিতে নিহত ৩৫,আহত ২৩০আজ শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবসমুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার মানববন্ধনমুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননাকারীদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভরায়গঞ্জে আসামি ধরতে গিয়ে পুলিশ সদস্য নিহতমান্দায় মাছের পোনা অবমুক্তকরণসব বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ-সমাবেশের ডাক কোটা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদেরঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিশ মোতায়েনরাসিক মেয়রের সাথে জনতা ব্যাংক কর্মকর্তাদের সৌজন্য সাক্ষাৎগোমস্তাপুরে বিএমডিএর নতুন অফিস ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধনদক্ষ নার্স তৈরির ফিল্ড ফোর্স হচ্ছেন নার্সিং শিক্ষকরা’ রামেবি উপাচার্য‘কোটাবিরোধী আন্দোলনকে রাষ্ট্রবিরোধী আন্দোলনে রূপ দেওয়ার অপচেষ্টা চলছে’রায়গঞ্জে আসামী ধরতে গিয়ে নদীতে ডুবে পুলিশ উপ-পরিদর্শকের মৃত্যু‘কোটা আন্দোলনের নামে শিক্ষার্থীরা সরকারবিরোধী আন্দোলন করতে চাচ্ছে’নেপালের নতুন প্রধানমন্ত্রী শপথ নিলেন
Home >> টপ নিউজ >> রাজশাহী >> মাকে খুনের পর ছেলের হাতে খুন হলেন বাবা

মাকে খুনের পর ছেলের হাতে খুন হলেন বাবা

খুন, হত্যা, হত্যাকাণ্ড, হত্যাকান্ড, লাশ, মরদেহ

ফাইল ফটো

ধূমকেতু প্রতিবেদক, বাঘা : রাজশাহীর বাঘায় আজিজুল আলম আসতুল (৫৭) এর লাশ উদ্ধারের পর পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বাবাকে খুনের দায়ভার স্বীকার করেছে নিহতের ছোট ছেলে তারেক রহমান সনি। লাশ উদ্ধারের পর নিহতের সন্দেহভাজন ছোট ছেলে তারেক রহমান সনিকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে তার বাবাকে খুন করেছে বলে স্বীকার করে।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার (১২ মে) উপজেলার চক আমোদপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের পুকুর পাড় থেকে আজিজুল আলম আসতুল এর লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে নিহতের ছোট ছেলে তারেক রহমান সনিকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ বিষয়ে নিহতের বড় ছেলে ফারুক হোসেন বাদি হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছে। আজিজুল আলম আসতুল উপজেলার চক আমোদপুর গ্রামের মৃত ইয়াকুব প্রামানিকের ছেলে।

ফারুক হোসেন জানান, ১৯৯৮ সালে তার মা পারুল বেগমকে কুপিয়ে হত্যা করেন বাবা আজিজুল আলম আসতুল। হত্যার দায়ে বাবাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেন আদালত। বছর দু’য়েক আগে সরকারের বিশেষ ব্যবস্থাপনায় মুক্তি পেয়ে বাড়িতে আসেন। তারপর থেকে তিনি অস্বাভাবিক আচরন করতে থাকেন। তাকে শিকলবন্দী করে রাখা হতো। মাস খানেক আগে ঘরের জানালা ভেঙ্গে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। এরপর থেকে এলাকার গাছতলায় থাকতেন।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খায়রুল ইসলাম জানান, লাশের বিভিন্নস্থানে আঘাতের চিহৃ দেখে হত্যার সন্দেহ করা হয়।

পরে নিহতের সন্দেহভাজন ছোট তারেক রহমান সনিকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে জানায়, ঘটনার রাতে তার বাবা তাকে মারপিট করলে সে বাবাকেও খড়ি দিয়ে মুখে ও ঘাড়ে মারপিট করে। মারা যাওয়ার পর পুকুর পাড়ে লাশ ফেলে রেখে আসে।

খুনের দায় স্বীকার করে তারেক রহমান সনি জানায়, তার বাবা কারামুক্ত হয়ে বাড়িতে আসার পর অস্বাভাবিক আচরনসহ তাকে মারপিট করতো। অন্যদিকে মাকে হত্যার পর সে (তারেক রহমান সনি) নিজেও স্বাভাবিক থাকতে পারেনি।

ওসি জানান, নিহতের বড় ছেলে ফারুক হোসেন বাদি হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

ধূমকেতু নিউজের ইউটিউব চ্যানেল এ সাবস্ক্রাইব করুন

প্রিয় পাঠকবৃন্দ, স্বভাবতই আপনি নানা ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। যেকোনো ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন এই ঠিকানায়। নিউজ পাঠানোর ই-মেইল : dhumkatunews20@gmail.com. অথবা ইনবক্স করুন আমাদের @dhumkatunews20 ফেসবুক পেজে । ঘটনার স্থান, দিন, সময় উল্লেখ করার জন্য অনুরোধ করা হলো। আপনার নাম, ফোন নম্বর অবশ্যই আমাদের শেয়ার করুন। আপনার পাঠানো খবর বিবেচিত হলে তা অবশ্যই প্রকাশ করা হবে ধূমকেতু নিউজ ডটকম অনলাইন পোর্টালে। সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ নিয়ে আমরা আছি আপনাদের পাশে। আমাদের ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করার জন্য অনুরোধ করা হলো Dhumkatu news