IMG-LOGO

রবিবার, ২১শে এপ্রিল ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৮ই বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই শাওয়াল ১৪৪৫ হিজরি

× Education Board Education Board Result Rajshahi Education Board Rajshahi University Ruet Alexa Analytics Best UK VPN Online OCR Time Converter VPN Book What Is My Ip Whois
নিউজ স্ক্রল
মধ্যআফ্রিকায় নৌকাডুবি,নিহত ৫৮প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় ধাপের ফল প্রকাশব্যারিস্টার খোকনকে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম থেকে অব্যাহতিআজ এমভি আবদুল্লাহ দুবাইয়ে পৌঁছবেখান ইউনিসের একটি হাসপাতালে মিললো গণকবর, ৫০ মরদেহ উদ্ধারদুই দিনের সফরে ঢাকায় আসছেন কাতারের আমিরতানোরে সংখ্যালঘু গৃহবধূর ঘরে মুসলিম যুবক আটকধামইরহাট সীমান্তে বিজেপি-বিএসএফ ফ্রেন্ডশিপ মিটিং প্রীতি খেলামহাদেবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত উপজেলা চেয়ারম্যানের মৃত্যুরহনপুর পৌর এলাকার একাংশে ৯ ঘন্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধরাজশাহীতে শেখ হাসিনা মহিলা অনুর্ধ্ব-১৫ ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন পাবনাবেলকুচি উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আমিনুলের নির্বাচনী পথসভাআ.লীগের পতনের আগে বিএনপি কোন নির্বাচনে যাবে না : আমিনুল‘দলীয় সিদ্ধান্ত আর নির্বাচন কমিশনের আইন এক নয়’উত্তেজনায় ইরান ইসরাইল
Home >> ধর্ম >> যেসব কারণে মানুষের চরিত্র সুন্দর করা জরুরি

যেসব কারণে মানুষের চরিত্র সুন্দর করা জরুরি

ধূমকেতু নিউজ ডেস্ক : ইসলামে সুন্দর চরিত্রের মর্যাদাই আলাদা। মুমিন মুসলমানের চরিত্র কেমন হবে। সুন্দর ও উত্তম চরিত্রের জন্য কী কী বিষয় থাকা জরুরি। কিভাবেই বা মুমিন মুসলমান উত্তম চরিত্রবান হতে পারবে। উত্তম ও সুন্দর চরিত্র গঠনে ইসলামের নির্দেশনা কি?

বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নিজের জীবনে সর্বোত্তম চরিত্রের মাধ্যমেই জাহেলিয়াতের অন্ধকার সমাজকে আদর্শ ও আলোকিত সমাজে পরিণত করতে সক্ষম হয়েছেন। যার চরিত্রের ব্যাপারে মহান আল্লাহ তাআলা এভাবে ঘোষণা দিয়েছেন যে-
وَإِنَّكَ لَعَلى خُلُقٍ عَظِيمٍ
‘আর (হে রাসুল!) আপনি অবশ্যই মহান চরিত্রের অধিকারী।’ (সুরা কালাম : আয়াত ৪)

উত্তম চরিত্রের উপকারিতা
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মতে মুহাম্মাদির জন্য উত্তম ও সুন্দর চরিত্র লাভের অন্যতম মডেল। এ ছাড়া তিনি উত্তম ও সুন্দর চরিত্র লাভের উপকারিতা তুলে ধরেছেন। তাহলো –

  • বান্দার ঈমানের পূর্ণতা
    উত্তম চরিত্রবান ব্যক্তিই ঈমানের পরিপূর্ণতা লাভ করে। হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘মুমিনদের মাঝে পূর্ণ ইমানদার সেই ব্যক্তি যে তাদের মধ্যে সর্বোত্তম চরিত্রের অধিকারী।’ (তিরমিজি)
  • আল্লাহর কাছে বিনয়ী
    উত্তম চরিত্রের অধিকারী ব্যক্তি মহান রবের জন্য বিনয়াবনতভাবে ইবাদত-বন্দেগিতে নিয়োজিত হয়। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়া সাল্লাম ঘোষণা করেন, ‘নিঃসন্দেহে মুমিন ব্যক্তি তার সর্বোত্তম চরিত্রের মাধ্যমে সিয়াম পালনকারী, রাত জেগে ইবাদত কারীর মর্যাদায় ভূষিত হয়।’ (আবু দাউদ)
  • আমলের পাল্লা ভারী
    উত্তম চরিত্রবান ব্যক্তি কেয়ামতের দিন উত্তম আমলকারী হবেন। তার আমলের পাল্লা ভারী হবে। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘কেয়ামতের দিন উত্তম চরিত্রের চাইতে ভারী কোনো কিছু পাল্লায় রাখা হবে না।’ (তিরমিজি)
  • জান্নাতের অধিবাসী
    উত্তম চরিত্র এমন এক মহৎ গুণ। যে গুণের কারণে মানুষকে জান্নাতে প্রবেশ করানো হবে। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কে প্রশ্ন করা হল, কোন বিষয়টি সর্বাধিক মানুষকে জান্নাতে নিয়ে যাবে? তিনি বললেন, ‘আল্লাহ ভীতি এবং উত্তম চরিত্র।’ (তিরমিজি, ইবনে মাজাহ)

উত্তম চরিত্রবান ব্যক্তিদের লক্ষণ বা চিহ্ন
ইসলামিক স্কলারদের বর্ণনায় উত্তম চরিত্রবান ব্যক্তিদের গুণগুলো উঠে এসেছে। যেসব গুণের কারণে মানুষ উত্তম চরিত্র লাভের অধিকারী হয়। তাহলো-

  • হজরত হাসান বাসরি রাহমাতুল্লাহি আলাইহি বলেন, ‘উত্তম চরিত্র হল- আতিথেয়তা, দানশীলতা এবং ধৈর্যাধারণ করা।’
  • হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে মুবারক রাহমাতুল্লাহি আলাইহি বলেন, ‘উত্তম চরিত্র হল- মানুষের সামনে হাসি-খুশি থাকা, সৎ উপদেশ দেয়া এবং কাউকে কষ্ট না দেয়া।’
  • ইমাম আহমদ রাহমাতুল্লাহি আলাইহি বলেন, ‘উত্তম চরিত্র হচ্ছে- তুমি অযথা করো প্রতি রাগান্বিত হবে না এবং করো প্রতি হিংসা-বিদ্বেষ রাখবে না।’
  • অনেক ইসলামিক স্কলারদের মতে, ‘উত্তম চরিত্র বা সদাচার হল-
  • আল্লাহর জন্য রাগ নিয়ন্ত্রণ করা।
  • পাপ এবং বিদআতের কাজে জড়িত ব্যক্তির সঙ্গে আনন্দ প্রকাশ না করা।
  • ভুলত্রুটিতে লিপ্ত ব্যক্তিদের উত্তম শিক্ষা দেয়া কিংবা তাদের উপর দণ্ডবিধি কায়েমের উদ্দেশ্য ছাড়া তাদের ক্ষমা করে দেয়া।
  • প্রত্যেক মুসলমান এবং চুক্তিতে আবদ্ধ অমুসলমানদেরকে কষ্ট না দেয়া। তবে অন্যায়ের প্রতিরোধ এবং সীমালঙ্ঘন ব্যতিত মাজলুমের অধিকার আদায়ের উদ্দেশ্যে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা যাবে।’

চরিত্র সুন্দর করার উপায়
চরিত্র সুন্দর করার সর্বোত্তম উপায় হচ্ছে, বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সুন্নাতের অনুসরণ ও অনুকরণ করা। কেননা কুরআনুল কারিমে মহান আল্লাহ তাআলা এ কথাই ঘোষণা করেছেন-
‘নিশ্চয়ই তোমাদের জন্য রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের জীবনে রয়েছে সর্বোত্তম নমুনা বা আদর্শ।’ (সুরা আহজাব : আয়াত ২১)

সুতরাং মুসলিম উম্মাহর জন্য আবশ্যক হল- রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের জীবনের প্রতিটি দিক সম্পর্কে জ্ঞানার্জন করা। আল্লাহর সঙ্গে বিশ্বনবির সম্পক্য কেমন ছিল? মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক কেমন ছিল? তিনি ব্যক্তি পরিবার সমাজের লোকদের সঙ্গে কেমন ব্যবহার করতেন? তার সঙ্গী-সাথীদের সঙ্গে কিভাবে চলাফেরা করতেন এবং কেমন আচরণ করতেন? এমনকি অমুসলিম সম্প্রদায়ের সঙ্গে বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সম্পর্কই বা কেমন ছিল?- এসব বিষয়গুলো সম্পর্কে গবেষণা করে সে অনুযায়ী জীবন পরিচালনা করার মধ্যেই রয়েছে উত্তম চরিত্র গঠনের উপায়।

সর্বোপরি বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উত্তম চরিত্র গঠনের বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করতে বন্ধুত্ব করার বিষয়টিও গুরুত্ব দিয়েছেন। কেননা পরিচ্ছন্ন অন্তরের অধিকারী, পরহেজগার ও চরিত্রবান ব্যক্তিদের সংস্পর্শ লাভের চেষ্টা করা, তাদের বৈঠকে বসা। তাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব করা। কেননা একজন মানুষ অন্য জনের সংস্পর্শে আসলে তার প্রভাবে প্রভাবিত হয়। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন-

‘ব্যক্তি (মানুষ) তার বন্ধুর ধর্ম বা রীতি-নীতির অনুসারী হয়। সুতরাং তোমরা দেখে নাও কার সঙ্গে বন্ধুত্ব (সুসম্পর্ক) স্থাপন করবে।’ (আবু দাউদ, ইবনে মাজাহ)

সুতরাং মুমিন মুসলমানের উচিত, বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের ব্যক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় জীবনের বিষয়গুলো নিজেদের জীবনে বাস্তবায়ন করা। সুন্দর ও উত্তম চরিত্রবান লোকদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখা। কুরআন-সুন্নাহ এবং ইসলামিক স্কলারদের দেয়া উত্তম গুণগুলো নিজেদের মধ্যে বাস্তবায়ন করা। তবেই মুমিন মুসলমান হয়ে উঠবে উত্তম ও সুন্দর চরিত্রের অধিকারী।

উত্তম চরিত্র লাভে আল্লাহর কাছে বেশি বেশি এ প্রার্থনা করা-

اللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنْ مُنْكَرَاتِ الأَخْلاَقِ وَالأَعْمَالِ وَالأَهْوَاءِ وَ الْاَدْوَاءِ
উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মা ইন্নি আউজুবিকা মিন মুনকারাতিল আখলাক্বি ওয়াল আ’মালি ওয়াল আহওয়ায়ি, ওয়াল আদওয়ায়ি।’
অর্থ : হে আল্লাহ! নিশ্চয় আমি তোমার কাছে খারাপ (নষ্ট-বাজে) চরিত্র, অন্যায় কাজ ও কুপ্রবৃত্তির অনিষ্টতা এবং বাজে অসুস্থতা ও নতুন সৃষ্ট রোগ বালাই থেকে আশ্রয় চাই।’ (তিরমিজি)

اَللَّهُمَّ اِنِّى اَسْئَلُكَ الْهُدَى وَ التُّقَى وَ الْعَفَافَ وَالْغِنَى
উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকাল হুদা ওয়াত্তুক্বা ওয়াল আফাফা ওয়াল গিনা।’
অর্থ : ‘হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে হেদায়েত (পরিশুদ্ধ জীবন) কামনা করি এবং আপনার ভয় তথা পরহেজগারি কামনা করি এবং আপনার কাছে সুস্থতা তথা নৈতিক পবিত্রতা কামনা করি এবং সম্পদ-সামর্থ্য (আর্থিক স্বচ্ছলতা) কামনা করি।’ (মুসলিম, তিরমিজি, ইবনে মাজাহ ও মুসনাদে আহমাদ)

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে সুন্দর ও উত্তম চরিত্রবান হওয়ার তাওফিক দান করুন। বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সুন্নাতের দিক-নির্দেশনা মেনে এবং তাঁর অনুসরণ-অনুকরণ করার মাধ্যমে নিজেদের উত্তম ও সুন্দর চরিত্রবান হিসেবে গড়ে তোলার তাওফিক দান করুন। আমিন।

ধূমকেতু নিউজের ইউটিউব চ্যানেল এ সাবস্ক্রাইব করুন

প্রিয় পাঠকবৃন্দ, স্বভাবতই আপনি নানা ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। যেকোনো ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন এই ঠিকানায়। নিউজ পাঠানোর ই-মেইল : dhumkatunews20@gmail.com. অথবা ইনবক্স করুন আমাদের @dhumkatunews20 ফেসবুক পেজে । ঘটনার স্থান, দিন, সময় উল্লেখ করার জন্য অনুরোধ করা হলো। আপনার নাম, ফোন নম্বর অবশ্যই আমাদের শেয়ার করুন। আপনার পাঠানো খবর বিবেচিত হলে তা অবশ্যই প্রকাশ করা হবে ধূমকেতু নিউজ ডটকম অনলাইন পোর্টালে। সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ নিয়ে আমরা আছি আপনাদের পাশে। আমাদের ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করার জন্য অনুরোধ করা হলো Dhumkatu news