IMG-LOGO

রবিবার, ২৮শে মে, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

× Education Board Education Board Result Rajshahi Education Board Rajshahi University Ruet Alexa Analytics Best UK VPN Online OCR Time Converter VPN Book What Is My Ip Whois
নিউজ স্ক্রল
গুরুদাসপুরে ‘জুলিও কুরি ‘শান্তি’ পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর উদযাপননওগাঁ পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলীর অপসারণ দাবিতে ঠিকাদারদের বিক্ষোভসুজানগরে জাতীয় নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস উদযাপনঠাকুরগাঁওয়ে পাকা মরিচের লাল গালিচায় কৃষকের মুখে হাসিবঙ্গবন্ধুর ‘জুলিও কুরি’ পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর উদযাপনতানোরে বঙ্গবন্ধুর ‘জুলিও কুরি’ শান্তি পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর পূর্তি উদযাপনবরেন্দ্র কলেজে রাজশাহীর বিএনসিসি ইউনিট উদ্বোধনএবার স্বর্ণপাম জিতলেন ফরাসি নারী জাস্টিন ত্রিয়েতজয়পুরহাটে চোলাই মদসহ ব্যবসায়ী আটকধুনটে গলায় ফাঁস নিলো স্কুলছাত্রীযমুনা নদী ছোট করার পরিকল্পনাআমনের ধানের উৎপাদন বাড়াতে ৩৩ কোটি টাকার প্রণোদনা‘পুলিশকে জনগণের বন্ধু হিসেবে কাজ করতে হবে’সিংড়ায় বঙ্গবন্ধুর জুলিও কুরি পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন‘বাংলাদেশ সংঘাত চায় না’
Home >> নগর-গ্রাম >> ‘বদলগাছীর মেম্বাররা ফকির’, বললেন ইউএনও আলপনা ইয়াসমিন

‘বদলগাছীর মেম্বাররা ফকির’, বললেন ইউএনও আলপনা ইয়াসমিন

ধূমকেতু প্রতিবেদক, বদলগাছী : নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের ইউপি সদস্য (মেম্বার)’দের সাথে অশোভন আচরণ করলেন নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আলপনা ইয়াসমিন। আর এতে করে ক্ষুব্ধ হয়েছেন ইউপি সদস্যরা। ২২ মার্চ (মঙ্গলবার) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, মঙ্গলবার (২২ মার্চ) জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট(এনআইএলজি) ঢাকা এর আয়োজনে ও বদলগাছী উপজেলা প্রশাসন এর বাস্তবায়নে ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যগণের জন্য ইউনিয়ন পরিষদ সম্পর্কিত অবহিতকরণ কোর্স (২২ মার্চ থেকে ২৪ মার্চ) ০৩ (তিন) দিনের এক কর্মশালা শুরু হয়। এই কর্মশালার ৮টি ইউনিয়নের নারী-পুরুষ মিলে ৯৬ জন ইউপি সদস্য অংশগ্রহণ করেন।

প্রথম দিনে সকালে একটি খামে মোড়ানো ছোট নাস্তার প্যাকেট প্রদান করেন ইউপি সদস্যদের হাতে হাতে। নাস্তা দিলেও দেননি কোন পানির বোতল। এতে করে ইউপি সদস্যদের মাঝে জল্পনা কল্পনার সৃষ্টি হয়। দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা আছে কিনা জানতে ইউপি সদস্যরা সবাই একত্রিত হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আলপনা ইয়াসমিনের কক্ষে সমতে গিয়ে ইউপি সদস্যরা বিলাশবাড়ি ইউপি সদস্য হেলাল হোসেনকে প্রতিনিধি করে পাঠায়। সকল ইউপি সদস্যদের প্রতিনিধি হিসাবে হেলাল হোসেন ইউএনওর কক্ষে প্রবেশ করলে ইউএনও আলপনা ইয়াসমিন সকল ইউপি সদস্যদের রাস্তার ফকির আখ্যায়িত করে অপমানিত করে তাঁর রুম থেকে বের করে দেয়।

মেম্বাররা বলেন, দুপুরের খাবার বিষয়ে ইউএনও’র সাথে কথা কথা বলতে আমরা সকলেই তাঁর অফিস কক্ষের সামনে যায়। সেখানে একজন কে ভিতরে যেতে বলেন তাই ইউপি সদস্য হেলালকে আমরা প্রতিনিধি করে ইউএনওর কাছে পাঠিয়ে ছিলাম। ইউএনও তার সাথে অশোভণ আচরন করে সকল ইউপি সদস্যদের ফকির বলে আক্ষায়িত করে তাদের কোনও কথা শুনবো না বলে চলে যেতে বলেন। এবং সকল ইউপি সদস্যদের হুমকী দিয়ে বলেন সবার ৫ (পাঁচ) মাসের বেতন আটকে দেওয়া হবে।

এ নিয়ে মেম্বারদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। পরে মেম্বাররা উপজেলা চত্বরে ইউএনও অফিসের সামনে এবিষয়ে অন্যদের সাথে আলোচনা করলে উপস্থিত মেম্বাররা এ সময় ইউএনও’র অশোভন আচরণের প্রতিাবাদ করতে থাকে।

মেম্বারদের শান্ত করতে ইউএনও কৌশলে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ইমামুল আল হাসান তিতু, মিঠাপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেন ও কোলা ইউপি চেয়ারম্যান শাহিনুর ইসলাম স্বপনকে সকল ইউপি সদস্যদের ডেকে পুনরায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন হলরুমে নিয়ে যান। পড়ে সেখানে উপজেলা চেয়ারম্যান সামছুল আলম খাঁন উপস্থিত হন।

ইউপি সদস্যদের শান্ত করতে ইউএনও ওই হল রুমে পুনরায় আসলে সকল ইউপি সদস্যরা ফকির বলে অপমানিত করার প্রতিবাদ জানান। এবং ইউপি সদস্যরা এই কর্মশালা কোর্স সম্পূর্ণ করবেন না বলে ক্ষোভে ফেটে পড়েন।

ইউএনও তাদেরকে বার বার কৌশলে তাদেরকে শান্ত করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়।

এসময় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শামসুল আলম খান, ভাইস-চেয়ারম্যান ইমামুল আল হাসান তিতু ও মিঠাপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেন ক্ষোভে ফেটে পড়া মেম্বারদের নিবৃত করার চেষ্টা করেন।

সকল ইউপি সদস্যরা বলেন, ইউএনও আমাদেরকে চরম অপমান করেছেন। আমরা কর্মশালায় আর অংশগ্রহন করবো কিনা আগামীকাল সবার সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিবো। আর আগামীকাল ঢাকা থেকে উর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা আসার কথা রয়েছে। ইউএনও আমাদেরকে রাস্তার ফকির বলে অপমানিত করার বিষয়টি আমরা তাঁকে জানাবো।

ইউপি সদস্য হেলাল হোসেন সহ প্রায় অর্ধশত সদস্যরা বলেন, সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত আমাদের প্রশিক্ষণ হবে। আজকে বেলা ১ টা ৫ মিনিটে আমাদের বিরতি দিয়েছে। আমরা ইঞ্জিনিয়ার সাহেবকে জিজ্ঞাসা করলাম আমাদের দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা আছে কিনা।

তারা কোনও কথা না বলে চলে গেলে পিয়নেরা বলেন, খাবারের কোনও ব্যবস্থা নেই। আমরা ৯৬ জন মেম্বার এসময় কোনও হোটেলে এক সাথে এতো খাবার পাব না। আর সকালে আমাদেরকে নাস্তা দিলেও পানির কোনও ব্যবস্থা ছিল না।

মেম্বার হেলাল হোসেন বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি ইউএনও স্যারের কাছে জানতে গেলে ইউএনও স্যার আমার কোনও কথা না শুনেই বলেন, আপনাদের (সকল মেম্বারদের) ফকিরের মতো আচরণ। আমি একটি কথা বলতে চাইলে তিনি আমাকে কথা বলার সুযোগ না দিয়ে আমার উপর রেগে গিয়ে বলেন, আপনাদের ৫ মাসের বেতন আটকানো হবে। আমার কোনও কথাই শোনেনি তিনি।

অপরদিকে ইউপি সদস্যরা ঘটনাটি সাংবাদিকদের জানালে সাংবাদিকরা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন হলরুমে গিয়ে উত্তেজনার ভিডিও ধারণ করলে ইউএনও আলপনা ইয়াসমিন তার নিরাপত্ত কর্মীদিয়ে সাংবাদিক মুজাহিদকে ডেকে নিয়ে তার হাত থেকে মোবাইল ফোনটি নিয়ে ইউএনও নিজেই ভিডিওটি ডিলিট করেন। এবং অনান্য সাংবাদিকদের এসে নিরাপত্তা কর্মী বলেন আপনাদের এখান থেকে চলে যেতে বলেছে। আপনারা চলে যান বলে সাংবাদিকদের বেড় করে দেন।

মিঠাপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেন জানান, আমি পরে গিয়েছি আগের ঘটনা বলতে পারবো না। তবে গিয়ে দেখি মেম্বাররা সবাই ইউএনও’র সাথে কি যেন কথা বলে বাহিরে এসে দাঁড়িয়ে আছে। ইউএনও স্যারসহ মেম্বারদের নিয়ে হলরুমে বসিয়ে ভুল বুঝাবুঝি শেষে সবাইকে ৫শ টাকা করে দিয়ে বিদায় করে দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান ইমামুল আল হাসান তিতু সাথে কথা বলতে তার মোবাইলফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শামসুল আলম খান বলেন, ইউপি সদস্যদের কর্মশালায় সকালের নাস্তা দিলেও পানি দেওয়া হয়নি। আবার দুপুরের খাবারের কোনও ব্যবস্থা না থাকায় মেম্বাররা মন খারাপ করে ইউএনও’র কাছে গেলে তিনি নাকি মেম্বারদের আচরন ফকিরের মতো বলে ইউএনও তাদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন বলে শুনেছি। এই ইউএনও যোগদানের পর থেকে সবার সাথে অশোভন আচরন করে চলেছে। আর এই কর্মশালার বিষয়ে আমাকে অবগত করা হয়নি।

এবিষয়ে ইউএনও আলপনা ইয়াসমিন বলেন, মেম্বাররা আমার রুমে আসার আগেই চিৎকার করছিলো। তাদেরকে বুঝিয়েছি এরকম করা ঠিক না। কিছু বলার থাকলে এক/দুই জন এসে সমস্যার কথা বলতে পারতো। আপনার সাথে মেম্বার দেখা করে কথা বলতে গেলে আপনি তাদের আচরণ ফকিরের মতো বলে অফিস থেকে বেড় করে দিয়েছেন বলে প্রশ্ন করলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।

এই ইউএনও এর আগেও অনেকে সেবা গ্রহিতা ও চাকুরিজীবিদের সাথে বিভিন্ন সময় অশোভন আচরন করেছেন।

ধূমকেতু নিউজের ইউটিউব চ্যানেল এ সাবস্ক্রাইব করুন

প্রিয় পাঠকবৃন্দ, স্বভাবতই আপনি নানা ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। যেকোনো ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন এই ঠিকানায়। নিউজ পাঠানোর ই-মেইল : dhumkatunews20@gmail.com. অথবা ইনবক্স করুন আমাদের @dhumkatunews20 ফেসবুক পেজে । ঘটনার স্থান, দিন, সময় উল্লেখ করার জন্য অনুরোধ করা হলো। আপনার নাম, ফোন নম্বর অবশ্যই আমাদের শেয়ার করুন। আপনার পাঠানো খবর বিবেচিত হলে তা অবশ্যই প্রকাশ করা হবে ধূমকেতু নিউজ ডটকম অনলাইন পোর্টালে। সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ নিয়ে আমরা আছি আপনাদের পাশে। আমাদের ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করার জন্য অনুরোধ করা হলো Dhumkatu news