IMG-LOGO

মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১লা শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই মহর্‌রম ১৪৪৬ হিজরি

× Education Board Education Board Result Rajshahi Education Board Rajshahi University Ruet Alexa Analytics Best UK VPN Online OCR Time Converter VPN Book What Is My Ip Whois
নিউজ স্ক্রল
মুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার মানববন্ধনমুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননাকারীদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভরায়গঞ্জে আসামি ধরতে গিয়ে পুলিশ সদস্য নিহতমান্দায় মাছের পোনা অবমুক্তকরণসব বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ-সমাবেশের ডাক কোটা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদেরঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিশ মোতায়েনরাসিক মেয়রের সাথে জনতা ব্যাংক কর্মকর্তাদের সৌজন্য সাক্ষাৎগোমস্তাপুরে বিএমডিএর নতুন অফিস ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধনদক্ষ নার্স তৈরির ফিল্ড ফোর্স হচ্ছেন নার্সিং শিক্ষকরা’ রামেবি উপাচার্য‘কোটাবিরোধী আন্দোলনকে রাষ্ট্রবিরোধী আন্দোলনে রূপ দেওয়ার অপচেষ্টা চলছে’রায়গঞ্জে আসামী ধরতে গিয়ে নদীতে ডুবে পুলিশ উপ-পরিদর্শকের মৃত্যু‘কোটা আন্দোলনের নামে শিক্ষার্থীরা সরকারবিরোধী আন্দোলন করতে চাচ্ছে’নেপালের নতুন প্রধানমন্ত্রী শপথ নিলেন‘ইতিহাস জানে না, তাই এ স্লোগান দিতে তাদের লজ্জা হয় না’চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রাক মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক নিহত
Home >> নগর-গ্রাম >> ভিজিডির চাল নিতে উপকারভোগীদের দিতে হচ্ছে টাকা

ভিজিডির চাল নিতে উপকারভোগীদের দিতে হচ্ছে টাকা

ধূমকেতু প্রতিবেদক, বদলগাছী : নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিডির (ভালনারেবল গ্রæপ ডেভলপমেন্ট) চাল দুস্থ উপকারভোগীদের নিকট বিতরণ করা হচ্ছে। সঞ্চয় ছাড়া উপকারভোগীদের কাছ থেকে নেওয়া হচ্ছে আরো অতিরিক্ত ৩০ টাকা করে। এমনকি উপকারভোগীদের নিকট বিতরণের চাল পরিষদ চত্বরেই কিনে নিচ্ছেন চাল ব্যবসায়ীরা।

ঘটনাটি ঘটেছে বদলগাছী উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়ন পরিষদে। সোমবার (২২ আগস্ট) বেলা ১১টা থেকে দুপুর পর্যন্ত সরেজমিনে গিয়ে এমন চিত্র দেখাগেছে। এসব অতিরিক্ত টাকা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান ওরফে কিশোরের প্রতিনিধি হিসেবে আশরাফুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি আদায় করছেন। কিন্তু অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইউপি পরিষদের চেয়ারম্যান।

দেখা যায়, পাহাড়পুর ইউনিয়ন পরিষদের নয়টি ওয়ার্ডে ২৬০ জন ভিজিডি কার্ডধারীদের নিকট ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হচ্ছে। চাল বিতরণের সময় ডাচ-বাংলা ব্যাংকের একজন কর্মী উপকারভোগীদের নিকট থেকে ২০০ টাকা করে সঞ্চয়ের নিচ্ছেন। কোন কোন উপকারভোগী ১শ টাকা করেও সঞ্চয় জমা দিয়েছেন। এরপর উপকারভোগীরা ভিজিডির কার্ড নিয়ে চাল নেওয়া জন্য পরিষদের চাল বিতরণের কক্ষের সামনে বসা ব্যক্তি আশরাফুলের কাছে যান। সেখানে তাদের নিকট থেকে ৩০ টাকা করে নিয়ে টিপ সহি নেওয়া হচ্ছে। চাল নেওয়ার পর পরিষদ চত্বরেই চাল ব্যবসায়ীরা অনেক উপকারভোগীদের নিকট থেকে চাল ক্রয় করে নিচ্ছেন। প্রতি বস্তা চাল ১১২০ টাকা থেকে ১২০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করেছেন উপকারভোগীরা চাল ব্যবসায়ীর কাছে।

মালঞ্চা গ্রামের উপকারভোগী মোসলেমা চাল নিতে আসতে পারেননি। এজন্য তার চাল নিতে এসেছেন শ্বাশুড়ি জাহেদা। তিনি বলেন, চাল দেওয়ার সময় আগে ১৫ টাকা করে নিতো। এখন কয়েক মাস থেকে আবার ৩০ টাকা করে নিচ্ছে। আমরা কিছু বুঝি না, তাই টাকা দিই।

উপকারভোগী শিউলী বলেন, এসব চাল খাওয়া যায়না। এজন্য বিক্রি করে দেই, আজও ৩০ কেজি চাল ১১৭০ টাকায় বিক্রি করেছি। অনেকেই চাল বিক্রি করেছে। চালগুলো কিনছেন কয়েকজন ব্যবসায়ী।

এর মধ্যে খলিলুর রহমান নামের এক ব্যবসায়ী উপকারভোগীদের কাছ থেকে ২০ বস্তা চাল কিনেছেন বলে জানান। তিনি বলেন, প্রায় সময়ই এমন চাল কেনা হয়। পরে পরিষদ থেকে বাইরে এনে বস্তা পরিবর্তন করে প্লাস্টিকের বস্তা করে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়। আজ ১১৫০ থেকে ১১৭০ টাকা করে প্রতি বস্তা চাল কেনা হয়েছে।

ব্যবসায়ী আজিজ বলেন, বেশি চাল কিনতে পারিনি, আট বস্তা চাল কিনেছি। অনেকেই পরিষদ চত্বর থেকেই চাল কিনছেন। কেউ কিছু বলে না, তাই আমিও চাল কিনি।

সঞ্চয়ের টাকা নেওয়া ডাচ-বাংলা ব্যাংকের কর্মী সাগর হোসেন বলেন, আজ ২৬০ জন উপকারভোগীদের মাঝে ভিজিডির চাল বিতরন করা হয়েছে। আমি সঞ্চয়ের টাকা তুলেছি এবং কার্ডে উঠিয়ে দিয়েছে। কেউ কেউ ২০০ টাকার বদলে ১০০ টাকাও সঞ্চয় দিয়েছেন। কিন্তু চাল বিতরণের সময় কেন অতিরিক্ত ৩০ টাকা নেওয়া হচ্ছে তা আমার জানা নেই।

চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি আশরাফুল ইসলাম বলেন, চাল পরিষদে আনার জন্য যে খরচ হয়, ওই খরচের জন্য প্রতি উপকারভোগীদের কাছ থেকে ৩০ টাকা করে নেওয়া হয়েছে। আমি পরিষদের কেউ না, চেয়ারম্যান পরিষদের মেম্বারদের দিয়ে আমাকে ডেকে এনে এই টাকা তুলতে বলেছে।

ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান কিশোর বলেন, অতিরিক্ত ৩০ টাকা নেওয়ার কোন নিয়ম নেই। আমি বিষয়টি জানার পর আর টাকা নেওয়া হয়নি। আর পরিষদের ভেতরে কোন চাল কেউ কেনেননি। পরিষদ সীমানার বাইরে কেউ কিনলে আমরা কি করবো।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাহমুদা সুলতানা বলেন, উপকারভোগীদের কাছ থেকে শুধু দুই শত টাকা করে সঞ্চয় নিতে পারবেন। অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার কোন সুযোগ নেই। আর খাদ্য-গুদাম থেকে যে চাল পরিষদে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁর জন্য পরিবহন খরচ অফিস থেকেই প্রদান করা হয়।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আলপনা ইয়াসমিন বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলে জানিয়েছেন।

ধূমকেতু নিউজের ইউটিউব চ্যানেল এ সাবস্ক্রাইব করুন

প্রিয় পাঠকবৃন্দ, স্বভাবতই আপনি নানা ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। যেকোনো ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন এই ঠিকানায়। নিউজ পাঠানোর ই-মেইল : dhumkatunews20@gmail.com. অথবা ইনবক্স করুন আমাদের @dhumkatunews20 ফেসবুক পেজে । ঘটনার স্থান, দিন, সময় উল্লেখ করার জন্য অনুরোধ করা হলো। আপনার নাম, ফোন নম্বর অবশ্যই আমাদের শেয়ার করুন। আপনার পাঠানো খবর বিবেচিত হলে তা অবশ্যই প্রকাশ করা হবে ধূমকেতু নিউজ ডটকম অনলাইন পোর্টালে। সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ নিয়ে আমরা আছি আপনাদের পাশে। আমাদের ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করার জন্য অনুরোধ করা হলো Dhumkatu news

Al-Aksha-Developer-Privat-limited-Rajshahi-Add 20-12-23

সকল সংবাদ

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031